সাতছড়ি উদ্যানে মহাবিপন্ন বনরুই অবমুক্ত

বার্তা প্রতিবেদক :
আন্তর্জাতিক প্রকৃতি ও প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণ সংঘ (আইউসিএন) ঘোষিত বিশ্বব্যাপী মহাবিপন্ন প্রাণীর তালিকায় রয়েছে বনরুই। মহাবিপন্ন এই প্রাণীটি সমান্য সংখ্যায় এখনো কোন রকমে টিকে রয়েছে আমার বিপন্ন প্রকৃতিতে। তাও কি স্বস্তি আছে? পথে পথে বিপদ। এমন একটি ঘটনা ঘটলো
হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার নালুয়া চা বাগানের গোলাটিলা এলাকার লোকালয়। গত ৪ মার্চ লোকালয়ে ডুকে পড়ে এই বনরুইটি। গোলাটিলা এলাকার বাবুল মিয়ার পানির কূপ থেকে প্রাণীকে ধরেন স্থানীয়রা। পরে বন বিভাগকে খবর দেওয়া হয়। পরে উদ্ধার হওয়া বনরুইটি সাতছড়ি জাতীয় উদ্যানে অবমুক্ত করা হয়েছে।


অবমুক্ত করার সময় সাতছড়ি উদ্যানের সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটির সহ-সভাপতি সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ, হবিগঞ্জের রেঞ্জ অফিসার রেহান মাহমুদসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বন বিভাগ জানায়, বনরুইয়ের ইংরেজি নাম Pangolin। আঁশযুক্ত এই প্রাণীর মুখে দাঁত না থাকায় আগে এদের অন্তর্ভুক্ত করা হতো দাঁতহীন স্তন্যপায়ী প্রাণীর দলে। কিন্তু কিছু বিশেষ বৈশিষ্ট্যের কারণে বর্তমানে এদের আলাদা একটি দল ফোলিডোটার অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। যার একমাত্র সদস্য বনরুই।
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. জহিরুল হক শাকিল জানান, মহাবিপন্ন এ প্রাণী আমাদের দেশে অত্যন্ত সীমিত। যেগুলো রয়েছে সেগুলোও ঝুঁকিপূর্ণ। স্তন্যপায়ী প্রজাতির এই প্রাণী সংরক্ষণে সংশ্লিষ্ট বিভাগকে আরো তৎপর থাকতে হবে।

No Comments

Post A Comment